ক’রোনা চিকিৎসায় আশাবা’দী হওয়ার মতো আবি’ষ্কার হয়েছে ই’সরায়েলের জৈব গবেষণাগারে। ই’সরায়েলের গবেষণাগার ইনস্টিটিউট ফর বায়োলজিকাল রিসার্চ (আইআইবিআর) ল্যাব এমন সুখবর দিয়েছে।

তারা দাবি করেছে, তারা ‘মনোক্লোনাল নিউট্রালাইজিং এন্টিবডি’ আবি’ষ্কার করেছে। ক’রোনা ভাই’রাসের চিকিৎসায় যা অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ আবি’ষ্কার। প্রতিরক্ষামন্ত্রী নাফতালি বেনেট এক বিবৃতিতে এ আবি’ষ্কারের কথা জানিয়েছেন।

তিনি তার বিবৃতিতে বলেন, ‘এই মনোক্লোনাল এন্টিবডি ক’রোনা রো’গীদের দেহের অভ্যন্তরে ভাই’রাসকে নির্বি’ষ করে দিতে পারে।’

আইআইবিআর করোনভাই’রাসের চিকিৎসা এবং ভ্যাকসিন তৈরির জন্য অব্যাহতভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই প্রচেষ্টাই এখন ক’রোনার চিকিৎসায় নতুন সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দিলো।

প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, বেনেট সোমবার আইআইবিআর পরিদর্শন করেছেন। পরিদর্শনকালে তাকে ‘করোনভাই’রাসটির এন্টিডট (ক্ষ’তিকারক জীবানুকে নির্বি’ষ করে দিতে এমন জিনিস) খুঁজে পাওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে।’

মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি হচ্ছে, কোন একটা আ’ক্রান্ত কোষ থেকে তৈরি হওয়া প্রতিরক্ষামূলক জিনিস যা কোন ভাই’রাস বা জী’বাণু আ’ক্রমণের পরে শরীরে তৈরি হয়। এতদিন পলিক্লোনাল এন্টিবডি নিয়ে কথা হচ্ছিলো।

প্লাজমা থেরাপি তেমনই একটা উপায়। কিন্তু মনোক্লোনাল এন্টিবডি আরো বেশি সুনির্দিষ্ট ও নিয়ন্ত্রিতভাবে কাজ করতে পারে। ফলে ক’রোনা চিকিৎসায় এই মনোক্লোনাল নিউট্রালাইজিং এন্টিবডি দারুণ কার্যকরী হবে।

এদিকে আইআইবিআর এর পরিচালক শ্যামুয়েল শাপির বরাতে বলা হয়েছে, অ্যান্টিবডির এই নয়া আবি’ষ্কৃত ফর্মুলাটির সূত্র এখন পেটেন্ট করা হচ্ছে। এরপরে কোন একটা আন্তর্জাতিক নির্মাতাকে এটার বাণিজ্যিক উৎপাদনের অনুমোদন দেয়া হবে।

এ জাতীয় অ্যান্টিবডি আমাদের ইমিউন-সিস্টেমে তৈরিকৃত প্রোটিন- যা করোনভাই’রাসকে সফলভাবে নিরাময় করার -চাবিকাঠি হিসেবে ব্যাপকভাবে কাজ করে থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here