ধর্মঃ পৃথিবীতে অ’শ্লীলতায় ও ন’গ্নতার শা’স্তি হিসেবে আল্লাহে তৈরি করেছেন ক’রোনাভা’ইরাসে। আল্লাহ মানুষের কাজে ক্ষু’ব্ধ। ক’রোনাভা’ইরাসেের মতো ম’হামা’রি হওয়ারই কথা ছিল। এমনটাই অভিমত পাকিস্তানের ধর্মগুরু মা্ওলানা তারিক জামিলের। এক টেলিভিশন চ্যানেলে তিনি বলছেন, নারীরা ছোট জামা পড়ে সিনেমা করছেন, নাচছেন, এই ধরণের অ’শ্লীলতা আল্লাহ মেনে নেননি। তাই ক’রোনা ছড়িয়েছে।

মা্ওলানা তারিক জামিলের অভিমত, মানুষ স্বভাবে অসম্ভব অ’শ্লীল ও মা’নসিকতায় ন’গ্ন। তাই আল্লাহ রেগে গিয়ে ক’রোনাভা’ইরাসে ছড়িয়ে শা’স্তি দিতে চাইছেন সভ্যতাকে।গোটা বিশ্ব যখন ক’রোনা ভাই’রাসের উৎপত্তি খুঁজতে ব্যস্ত, তখন এই পাকিস্তানি মা্ওলানা নিজের মতেই অটল। তবে মা্ওলানা তারিক জামিলের এই কথা মেনে নেননি তাঁরই দেশের নারী সমাজকর্মীরা। নারী অধিকারের জন্য লড়া সমাজকর্মীরা রীতিমত একহাত নিয়েছেন এই পাক ধর্মগুরুকে।

অপদার্থ ও নীচু মা’নসিকতার তত্ত্ব বলে খারিজ করেছেন আইন ও ন্যায় বি’ষয়ক সং’সদীয় স’চিব ব্যারিস্টার মালিকা বোখারি। ট্যুইট করে তিনি বলেছেন, ক’রোনাভা’ইরাসে নিয়ে গোটা বিশ্ব কাঁপছে। কোনও উৎস খুঁজে এখনও পাওয়া যায়নি। তার মধ্যে নারীদের নীচু করে দেখানোর খেলায় মেতেছে একদল অশিক্ষিত লোক। ক’রোনাভা’ইরাসেের ছড়িয়ে পড়ার পিছনে কোনও ভাবে নারীদের জামা পরার কারণ থাকতে পারে না।

তাঁর আরও মত, এই ধরণের কথা বলে নারীদের প্রতি অন্যায় করার একটা স্বাভাবিক প্রবৃত্তি তৈরি করেন এই সব ধর্মগুরু। এই প্রবণতা অত্যন্ত বি’পজ্জনক। পাকিস্তানের মা’নবাধিকার কমিশনও তারিক জামিলের বক্তব্যের বি’রুদ্ধে সরব হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here