রাজধানীর হাজারীবাগে বাদাম খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে তিন বছর ব’য়সী শি’শুকে ধ’র্ষণের দায় স্বীকার করে জবানব’ন্দি দিয়েছেন সুজন মিয়া (৬০)।

মঙ্গলবার (৯ জুন) ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সুফিয়ান নোমানের আ’দালতে জবানব’ন্দি দেন এই বাদাম বিক্রেতা। এ দিন মা’মলার ত’দন্ত কর্মকর্তা হাজারীবাগ

থানার উপ-পরিদর্শক পু’লিশের আজাদ হাওলাদার আ’সামি সুজন মিয়াকে ঢাকা মহানগর হাকিম আ’দালতে হাজির করেন। আ’সামি স্বেচ্ছায় স্বী’কারোক্তিমূ’লক জবানব’ন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ডের আবেদন করেন ত’দন্ত কর্মকর্তা।

আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারক ফৌজদারি কার্যবিধি ১৬৪ ধারায় তার জবানব’ন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কা’রাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

হাজারীবাগ থানার (না’রী ও শি’শু) আ’দালতের সাধারণ নিবন্ধ’ন কর্মকর্তা পু’লিশের উপ-পরিদর্শক আব্দুল ওয়াদুদ বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জবানব’ন্দিতে বাদাম বিক্রেতা সুজন মিয়া বলেন, গত ১ জুন বাদাম খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে হাজারীবাগের একটি নির্জন বাসায় শি’শুটিকে নিয়ে যান তিনি। সেখানে তাকে জো’র করে ধ’র্ষণ করেন। শি’শুটি চি’ৎকার করতে থাকলে সেখান থেকে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে তার গ্রামের বাড়ি চলে যান সুজন।

ঘ’টনার দিনই ভু’ক্তভোগী পরিবার সুজনকে আ’সামি করে না’রী ও শি’শু নি’র্যাতন দ’মন আইনে হাজারীবাগ থানায় একটি মা’মলা করে। রোববার (৭ জুন) রাতে গো’পন সংবাদের ভিত্তিতে ভৈরব থেকে সুজনকে গ্রে’ফতার করে পু’লিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here