মানুষের মনের তিনটি স্তর। চেতন, অবচেতন ও অ’চেতন। ঘুমের মধ্যে মানুষ তার অবচেতন স্তরে থাকে। আর তখন তার নিজস্ব ব্যাক্তিত্ব ফুটে ওঠে।

হয়তো ভাবছেন কিভাবে ঘুমের মধ্যে ব্যাক্তিত্ব ফুটে ওঠে? তাহলে বলি আপনি কিভাবে ঘুমোচ্ছেন সেটি বলে দেয় আপনার ব্যাক্তিত্ব কেমন। মানুষ ঘুমানোর সময় নিজে’র ভাব ভঙ্গি দিয়ে তার ব্যাক্তিত্ব ফুটিয়ে তোলে।

আপনি যখন জেগে থাকা অব’স্থায় চলা ফেরা করেন আর কথা বার্তা বলেন সেটা যেমন আপনার আবেগ বা ব্যাক্তিত্ব ফুটিয়ে তোলে তেমনই ঘুমের ভঙ্গিও আপনার ব্যাক্তিত্ব ফুটিয়ে তোলে।

স’ম্প্রতি এরকম একটি ত’থ্য দিয়েছেন সাউথ অস্ট্রেলিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ডক্টর মা’র্ক কোহলার। তিনি বলেছেন –

১। কোন ব্যাক্তি যদি মায়ের পে’টে থাকার সময় যেরকম অব’স্থায় থাকে সেরকম অব’স্থায় যদি ঘুমায় তাহলে বুঝতে হবে সে দু’শ্চিন্তাগ্রস্থ।

২। যে মানুষ এক পাস ফি’রে ঘুমায় সে অনেক হিসাবি ও সঠিক জীবনযাত্রার অধিকারী।

৩। যারা বুক উঁচু করে রাজকীয় ভঙ্গিমায় ঘুমায় তারা আত্মনির্ভরশীল হয়ে থাকে। এরকম ঘুম খুব দৃঢ় ব্যাক্তিত্বের মানুষে হয়ে থাকে।

এদের ঘুম খুব পাতলা হয়, খুব সহজে যেমন এরা ঘুমিয়ে প’ড়েন আবার অল্প আওয়াজেই ঘুম থেকে উঠে প’ড়েন। এরা হাত পা শ’রীরের বরাবর সোজা করে রেখে ঘুমায়।

৪। যেসব মানুষ পে’ট নীচের দিকে দিয়ে কাত হয়ে ঘুমায় তারা খুব হ’তাশ হয়ে থাকে। এদের আত্মবিশ্বা’স খুব কম হয়। এরা উপুড় হয়ে শুতেও পছন্দ করে। এ ধ’রনের মানুষেরা নিজে’র জীবনের ও’পর অল্পই নিয়’ন্ত্রণ রাখতে পারে।

আবার নিউস ডট কমের ঘুম বি’ষয়ক এক গ’বেষ’ণা প্র’তিবেদনে স্বা’মী স্ত্রীদের ঘুমানোর অব’স্থান নিয়ে গবেষকরা বিশেষ বর্ণনা দিয়েছেন। স্বা’মী স্ত্রীর ঘুমানোর ভঙ্গি থেকেও বোঝা যায় তাদের আ’সলে কেমন স’স্পর্ক। সেগু’লি হল –

১। চামচের মত ঘুমঃ এরকম ভঙ্গিমায় ঘুমালে স্বা’মী আ’নন্দ একস’ঙ্গে দেখে চামচের মত মনে হয়। এটা স্বা’মী স্ত্রীর প্রাকৃতিক ঘুমের নিয়ম। ২। পায়ে পা দিয়ে ঘুমঃ এই ভাবে ঘুমালে বোঝা যায় তাদের মধ্যে খুব মধুর স’স্পর্ক।

৩। কোমড় জরিয়ে ঘুমঃ স্বা’মী স্ত্রী একে অপরের কোমড় ধ’রে ঘুমোলে তাদের ঘুমের ভঙ্গি বলে দেয় তারা সবসময় একে অপরের কাছাকাছি আছে। এজাতীয় ঘুম বলে দেয় তাদের মধ্যে স’স্পর্ক কত ভালো আর দুজনে দুজনের সংস্প’র্শ কতটা উপভো’গ করে।

৪। দূ’রত্ব বজায় রেখে ঘুমঃ অনেক ক্ষেত্রে স্বা’মী স্ত্রী ঘুমানোর সময় বেশ খানিকটা দূ’রত্ব বজায় রেখে ঘুমায়। এক্ষেত্রে বোঝা যায় তাদের স’স্পর্কের মধ্যে অনেক দূ’রত্ব তৈরী হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here