অবশেষে কা’রাব’ন্দি জীবন থেকে মুক্তি পেলেন ব্রাজিল কিংবদন্তি ফুটবলার রোনালদিনহো এবং তার ভাই রবার্তো আসিস। ৩২ দিন হাজতবাসের পর ১.৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেলেন তারা। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ১৩ কোটি ৬০ লাখ ৩৩ হাজার টাকা।

তবে এখনই পুরোপুরি মুক্তি পাচ্ছেন না রোনালদিনহো-রবার্তো। আপাতত গৃহব’ন্দি (হাউস অ্যারেস্ট) অবস্থায় একটি হোটেলে থাকতে হবে তাদের।

গেল মাসে প্যারাগুয়েতে জাল পাসপোর্ট ও ভুয়া কাগজপত্রসহ ধরা পড়েন রোনালদিনহো-রবার্তো। এর পর তাদের কোনো কথা না শুনে কা’রাগারে চালান করে দেয় পু’লিশ। পরে শুনানিতে ব্রাজিলিয়ান দুই ভাইকে ৬ মাসের কা’রাদ’ণ্ড প্রদান করেন আ’দালত।

পরে কারামুক্তির আবেদন করেন তাদের আইনজীবী। তবে প্রথম দফায় তা নাকচ করে দেন কোর্ট। অবশেষে জে’লহাজতে ৩২ দিন কা’টানোর পর শর্তসাপেক্ষে রোনালদিনহো-রবার্তোকে ছাড়ের আবেদন মঞ্জুর করেন বিচারপতি গুস্তাভো অ্যামারিয়া। এ জন্য মুক্তিপণ (বন্ড) হিসেবে তাদের গুনতে হয়েছে ১.৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

শর্তের কারণে দেশটির রাজধানী আসুনসিওনে একটি হোটেলে বাকি চার মাস ২৮ দিনের শা’স্তিভোগ করতে হবে রোনালদিনহো-রবার্তোকে।

যদিও শুরু থেকেই তারা বলে আসছেন, এ জাল পাসপোর্টের ব্যাপারে কিছু জানেন না। কারণ সব কিছুর ব্যবস্থা করেছে তাদের আমন্ত্রণ জানানো প্রতিষ্ঠান। যেটির নিমন্ত্রণে প্যারাগুয়েতে একাধিক প্রমোশনাল ইভেন্টে অংশ নিতে গিয়েছিলেন দুই সহোদর।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের নভেম্বরের পর নিজের ব্রাজিলিয়ান পাসপোর্ট হা’রান রোনালদিনহো। এর আগে প্রিয় স্বদেশের লেক গুয়াইবাতে একটি চিনির কল বানান তিনি। তবে তাতে সরকারের অনুমোদন ছিল না। এজন্য তাকে ২৩ লাখ ডলার জরিমানা করা হয়। কিন্তু তা দিতে না পারায় তার পাসপোর্ট জ’ব্দ করে পু’লিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here