ক’রোনা সং’ক্র’মণের কারণে গত দুই মাস চলচ্চিত্রের সকল কার্যক্রম বন্ধ ছিল। গতকাল মঙ্গলবার প্রযোজক, পরিচালক সমিতির নেতৃবৃন্দ এক যৌথ সভায় আগামী ৫ জুন থেকে শুটিং শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

চলচ্চিত্রের গল্পের প্রয়োজনে শিল্পীদের মা’রামারি, রোমান্স, নাচ-গান কিংবা অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করতে হয়। ক’রোনার এই সময়ে ঝুঁ’কি নিয়ে এসব দৃশ্যে অভিনয় করতে কতটা প্রস্তুত শিল্পীরা? এ বি’ষয়ে চিত্রনায়িকা আইরিন সুলতানা নিজের মত রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ দিন ধরে চলচ্চিত্রের শুটিং বন্ধ রয়েছে। ক’রোনা কবে নাগাদ নির্মূল হয় তা জানা নেই। তাই এর মধ্য দিয়েই স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুটিং করতে হবে। বি’ষয়টি বিবেচনা করে প্রযোজক-পরিচালক সমিতি শিল্পীদের ক’রোনা পরীক্ষা করিয়ে শুটিংয়ে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

চলচ্চিত্রে মা’রামারি, রোমান্টির বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করতে আমার আপত্তি নেই। শুটিং করার জন্য আমি প্রস্তুত।’

আইরিন সুলতানার হাতে বেশ ক’টি সিনেমার কাজ রয়েছে। তা জানিয়ে এ অভিনেত্রী বলেন—‘কয়েকটি প্রজেক্টের শুটিং বাকি আছে। প্রযোজক-পরিচালক এগুলোর শুটিংয়ের শিডিউল চাইলে কাজগুলো করে দেব। এছাড়া নতুন একটি প্রজেক্টের কাজ হাতে আছে। সেটাও করতে চাই।’

এদিকে প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘চলচ্চিত্রে ফাইট, নাচ-গান, রোমান্স থাকবেই। এটা বাদ দেওয়া সম্ভব নয়। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এগুলো করা হবে। ক’রোনায় অন্তরঙ্গ দৃশ্যের শুটিং করতে বা’ধা নেই। এজন্য আমরা শুটিং শুরুর আগে শিল্পীদের ক’রোনা টেস্ট করিয়ে নেব।

এছাড়া শুটিং সেটে লোকসংখ্যা কম থাকবে। থার্মাল গান, স্যানিটাইজার রাখা হবে। শুটিং করে নায়ক-নায়িকা সাতদিন আইসোলেশনে থাকবেন। আশা করছি, এতে করে রোমান্স, মা’রামারির দৃশ্যের শুটিং করতে কোনো সমস্যা হবে না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here