স্বামী-স্ত্রী একজন অন্যজনের পরিপূরক। তাইতো তাদের স’স্পর্ক হওয়া চাই মধুর ও ব’ন্ধুত্বপূর্ণ।

তারপরও নানা রকম ঝামেলা দুজনের মধ্যে হয়েই থাকে। তবে সব কিছু কা’টিয়ে তুলে স’স্পর্ককে সুন্দর রাখা দুজনেরই দায়িত্ব।

দেখা যায়, রাতে একস’ঙ্গে ঘুমানোর পরেও অনেক স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কোনো মিল থাকে না। একে অন্যের প্রতি মনে মনে রাগ পুষে রাখেন।

তবে গবেষণা বলছে- সকালে ঘুম থেকে উঠে দুজন দুজনকে কমপক্ষে পাঁচ মিনিট জড়িয়ে ধ’রে শুয়ে থাকার কথা। এই কাজটি করলে মিলবে আশ্চর্যজনক উপকার। চলুন জে’নে নেয়া যাক সেই উপকারগুলো স’স্পর্কে-

> সংসার মানেই খুঁটিনাটি ঝ’গড়া। সেখানে মনোমালিন্য হওয়াটা স্বা’ভাবিক। তবে অনেকেই এমন আছে যারা এসব ব্যাপার সহজে ভু’লতে পারে না। কিন্তু সকালের ওই একটি কাজ খুব সহজেই এসব ঝ’গড়া ভু’লিয়ে দিতে পারে। এতে স’স্পর্ক সুন্দর ও গ’ভীর হয়।

> স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে স’স্পর্ক ভালো থাকা মানেই মন ভালো থাকা। সকালে দুজন দুজনকে জড়িয়ে ধ’রার মাধ্যমে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। মন থাকে শান্ত। তাই কাজে’র প্রতি থাকে বিশেষ মনোযোগ। যারা চাকরি করেন তাদের অফিসে বকা খাওয়ারও ভ’য় থাকে না।

> সকালের একটি কাজে’র ফলে দুজনের প্রতি বিশ্বা’স মজবুত হয়। যা সংসারে শান্তি বজায় রাখার জন্য খুব জ’রুরি।

> অনেক সময় নানা কারণেই শ’রীরে অলসতা বা ক্লান্তিভাব চলে আসে। কিন্তু জানলে অ’বাক হবেন, সকালে এই কাজটি জাদুর মতো সব ক্লান্তি ও অলসতা দূ’র করে দেয়। ফলে শ’রীর ও মন চাঙা হয়ে যায়।

> একস’ঙ্গে শুয়ে থাকার কারণে দুজনের মধ্যে ছোট-খাটো দুষ্টোমিও হয়। এতে ধীরে ধীরে দুজনের মধ্যে ব’ন্ধুত্বপূর্ণ স’স্পর্ক গড়ে ওঠে। ফলে দুজনের মতামতও মিলতে থাকে। যা ঝ’গড়া কমাতে সাহায্য করে। স’স্পর্ক সুন্দর করে।

> সকালের এই একটি কাজ দুজন দুজনকে খুব ভালোভাবে বুঝতে সাহায্য করে। এতে একে অন্যের খুশি বুঝতে পারে। ফলে দুজনের মধ্যে ভালোবাসা বৃ’দ্ধি পায়।

এছাড়াও অনেক বড় স’মস্যার সমাধান ক’রতে পারে সকালের এই একটি কাজ। তাই সঙ্গীকে জড়িয়ে ধ’রুন এবং সুন্দর স’স্পর্ক গড়ে তুলুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here