ঘরভাড়া না দেয়ায় রাজধানীর চকবাজার থানাধীন হোসনী দালান শিয়া গলির এক বৃ’দ্ধ ভাড়াটিয়াসহ তার দুই ছেলেকে পি’টি’য়ে গু’রুতর জ’খম করেছে বাড়ির মালিক ও তার ভাতিজা। মঙ্গলবার বিকেলে হোসনী দালান, শিয়া গলির ১৬ নং ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

আ’হতরা হলেন- পিঠা ঝালমুড়ি বিক্রেতা মো. হান্নান (৫০), ছেলে আল আমিন (২৪) ও সাইদুল ইসলাম (২০)।

পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন ডিএমপির লালবাগ বিভাগের চকবাজার জোনের সহকারী কমিশনার মো. ইলিয়াছ হোসেন।

আ’টক করেন বাসার মালিক রাজু আহমেদ ও ভাতিজা সোহানকে। ওই ঘটনায় রাতেই চকবাজার থানায় একটি মা’মলা নথিভুক্ত হয়েছে।

মা’রধরের শি’কার ভাড়াটিয়া মো. হান্নান কা’ন্নাজ’ড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘পিঠা ও ঝালমুড়ি বিক্রি করে আমার সংসার চলে যায়। দীর্ঘ ৫ বছর ধরে এই বাসায় ভাড়ায় বসবাস করে আসছি।

কখনও ভাড়া নিয়ে সমস্যা হয়নি। কিন্তু এবার ক’রোনার কারণে পিঠা ও ঝালমুড়ি ব্যবসা চলছে না। দুই মাসের এই ক’রোনার কারণে বিক্রি বন্ধ থাকায় আর্থিক সং’কটে পড়েছি। যে কারণে ভাড়া দিতে পারিনি’।

তিনি বলেন, ভাড়া দিতে না পারায় মালিক বাসায় তালা দিয়ে দেয়। আজ বিকেলে দোতলায় চাবি দেয়ার জন্য অনুরোধ করলে তিনি রেগে যান।

তখন বলি প্রতিমাসে ১২ হাজার করে টাকা ভাড়া দিয়ে আসছি, কখনও সমস্যা হয়নি। এইবারই প্রথম। যদি একান্তই না মানেন তাহলে অ্যাডভান্স হিসেবে দেয়া ৪০ হাজার টাকা থেকে কে’টে নিন।

এই কথা শোনা মাত্রই বাড়ির মালিক আমার বুকে আ’ঘাত করে। দুই ছেলেকে মাথায় ও হাতে আ’ঘাত করে। তিনজনকেই র’ক্তা’ক্ত করে বের করে দেয়। অন্য ভাড়াটিয়াদের সহযোগিতায় বেরিয়ে আসি, সে সময়ও হ’ত্যার হু’মকি দিতে থাকে’।

এ ভাড়াটিয়া বলেন, খবর পেয়ে পু’লিশ আসে। পু’লিশই আমাদের হাসপাতালে নেয়। মাথায় ৩টি সেলাই লাগে এবং হাতে মাথায় ব্যান্ডেজ দিতে হয়।

চকবাজার জোন পু’লিশের সহকারী কমিশনার মো. ইলিয়াছ হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ওই বাসার মালিক রাজু আহমেদ আরও ভাড়াটিয়ার ঘরে তালা দিয়েছেন ভাড়ার জন্য।

সবাই চাবি ফেরত পেলেও হান্নানের পরিবার কাকুতি-মিনতি করেও ঘরে ঢোকার চাবি পায়নি। এই ক’রোনায় মানবিকতাকেই সবাই যেখানে গুরুত্ব দিচ্ছে, সেখানে তিনি এক মাসের ভাড়ার জন্য দীর্ঘদিনের ভাড়াটিয়াকে পি’টি’য়ে র’ক্তা’ক্ত করেছেন।

তিনি বলেন, পি’টি’য়ে র’ক্তা’ক্ত করার খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে টহল পু’লিশ দল নিয়ে উপস্থিত হই। আ’হতদের উ’দ্ধার করে মেডিকেলে পাঠানো হয়। ভাড়াটিয়াদের জ’খম করার অ’পরাধে বাড়ির মালিক রাজু আহমেদ ও তার ভাতিজা মো. সোহানকে আ’টক করে থানায় নেয়া হয়েছে।

ভু’ক্তভোগী ভাড়াটিয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে চকবাজার থানায় একটি মা’মলা রুজু করা হয়। মা’মলা নং ৬। পু’লিশ মা’মলার বা’দী ও তার ছেলেদের নিরাপত্তা দেওয়া ও ওই বাসায় থাকার ব্যবস্থা করে দিয়েছে।

বুধবার সকালে দা’য়ের করা মা’মলায় বাড়ির মালিক রাজু আহমেদ ও তার ভাতিজা মো. সোহানকে গ্রে’ফতার দেখিয়ে আ’দালতে সোপর্দ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here