মা’রণাত্মক রো’গ ক্যা’ন্সারের হাত থেকে রেহাই পাওয়ার ও’ষুধ আজও অধ’রা। চিকিত্সা বিজ্ঞানের নিরন্তর প্রচেষ্টার পরেও ক্যা’ন্সারের প্রতিষেধক মি’লছে না।

শ’রীরের যে কোনও স্থানেই ক্যা’ন্সার থা’বা বসাতে পারে আর তার পর তা আস্তে আস্তে ছ’ড়িয়ে প’ড়ে গোটা দে’হে।

প্রথম ধাপে ধ’রা পড়লে বা কেমোথেরাপির সাহায্যে ক্যা’ন্সার নিরাময় সম্ভব হলেও দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় ধাপে ধ’রা পড়লে ক্যা’ন্সার নিরাময় করা কার্যত অসম্ভব হয়ে প’ড়ে, শেষ পর্যায়ে মৃ’ত্যু অবধারিত।

এই ক্যা’ন্সারের মধ্যে মেয়েদের ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সার সবথেকে মা’রাত্মক ভ’য়াবহ। যা মেয়েদের শ’রীরের যে কোনও অ’ঙ্গের কোষকে ভে’ঙে দেয়।

যার প্রধান লক্ষণ হলেও কোম’রে যন্ত্রণা থেকে খিদে কমে যাওয়া। মেয়েদের ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সারের কতগু’লি লক্ষণ নিচে আলোচনা করা হল-

১. বুক জ্বা’লা- গ্যাস অম্বল অ্যাসিডিটি এসবের কারণে মাঝে মাঝে বুক জালা হওয়াটা স্বা’ভাবিক কিন্তু তার স’ঙ্গে বমি বমি ভাব এগু’লি প্রায়শই ঘটতে থাকলে কখনোই অবহেলা করা উচিত নয় কারণ এটি বিশেষ করে মহিলাদের ক্ষেত্রে ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সারের অন্যতম লক্ষণ।

২. হঠাত্ করে খুব বেশি পে’ট ফুলে যাওয়া- ফ্যাটের কারণে আমাদের পে’ট ভু’লতেই পারে কিন্তু এটা নীরবে ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সারের অন্যতম ঘা’তক বলা ভালো। এটিকে কখনোই অবহেলা করা উচিত নয় বিশেষ করে যখন দেখবেন ডায়েট করেও পে’ট ফোলা কমছে না তাহলে কিন্তু সেটি অবশ্যই চিন্তার বি’ষয়।

৩. ক্লান্তি ভাব- অতিরি’ক্ত পরিশ্রম মা’নসিক চা’প ঠিকমতো খাওয়া দাওয়া না হলে শ’রীরে ক্লান্তি ভাব আসে আবার ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সারের ক্ষেত্রেও শ’রীরে ক্লান্তি ভাব চলে আসে।

দুটি কারণ যদিও স’ম্পূর্ণ আ’লাদা তা হলেও ক্যানসার কোষগু’লি যখন বেড়ে গিয়ে সচল হয়ে যায় তখনই ক্লান্তি ভাব আসে এবং সে ক্ষেত্রে ক্লান্তি ভাবটা একটু হলেও আ’লাদা হয় তাই অবশ্যই চিকিত্সকের প’রামর্শ নেওয়া উচিত।

৪. হঠাত্ করে ওজন কমে যাওয়া বা বেড়ে যাওয়া- অতিরি’ক্ত খাবার খাওয়ার ফলে ওজন বেড়ে যায় এবং কম খেলে ওজন হ্রাস পায় এটি স্বা’ভাবিক ব্যাপার।

কিন্তু যখন কোনও কারণ ছাড়াই ওজন অস্বা’ভাবিক হারে বৃ’দ্ধি পায় তখনই বুঝতে হবে শ’রীরের ডিম্বাশয়ে ক্যানসার থা’বা বসিয়েছে।

এটি আবার ওজন ভাষার ক্ষেত্রেও তাই যদি ঠিকঠাক টাইম মতো খাওয়ার পরেও ওজন বৃ’দ্ধি না পায় এবং ওজন ক্রমশ কমতে থাকে তাহলেও বুঝতে হবে এটি ডিম্বাশয়ের ক্যা’ন্সারের কারণ।৫. হজ’মের স’মস্যা- অনেক সময় দেখা যায় অল্প খাবার খাওয়া এবং তাড়াতাড়িই হজ’ম হয়ে যাওয়া এমন খাবার খেলেও দীর্ঘক্ষণ

ধ’রে পে’ট ফোলা গ’লা অবধি খাবার উঠে আশা এসব হতে থাকেন আ’সলে ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সারের অন্যতম লক্ষণ হল পাচণতন্ত্রের ঠিকঠাক কাজ না হওয়া।

৬. ডায়েরিয়া- একটু খাবারের গণ্ডগোল হলেই আমাদের পে’টের স’মস্যা দেখা যায় বার বার পায়খানা যাওয়া ভূমি হওয়া এগু’লি ডায়েরিয়ার সাধারণ লক্ষণ।

কিন্তু এ রকম বারে বারে চলতে থাকলে তা কখনওই অবহেলা করা উচিত নয় কারণ ডিম্বাশয়ের ক্যা’ন্সার ক্ষেত্রে আমাদের দে’হের সমস্ত অ’ঙ্গ প্রত্যঙ্গ গু’লিকে আসতে আসতে পচিয়ে ফে’লে এর ফলে বারেবারেই পায়খানা পাওয়ার মতো স’মস্যা দেখা দেয় এগু’লি কখনোই সাধারণ ডায়েরিয়া নয়।

৭. পিঠে ব্য’থা- শোয়ার ওলট পা’লনের জন্য পিঠে ব্য’থা হতে পারে কিন্তু হঠাত্ করে যদি দীর্ঘ সময়ের জন্য পিঠে ব্য’থা হয় তাহলে বুঝতে হবে এটি ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সারের অন্যতম লক্ষণ।

৮. অবসাদ- মন খা’রাপ থাকলে অবসাদ হওয়াটা স্বা’ভাবিক কিন্তু যে কোনও সময়েই ভাল কাজ করলেও যদি আপনার মা’নসিক অবসাদ পিছু ছাড়ে না তা হলে বুঝতে হবে ডিম্বাশয়ে ক্যানসারের লক্ষণ।

৯. অনিয়মিত পিরিয়ড- হরমোন প্রোল্যাক্টিন এসবের কারণে অনেকেরই অনিয়মিত পিরিয়ডের স’মস্যা থাকে কিন্তু যদি দেখেন আপনার পিরিয়ড ঠিকঠাক হয় অথচ হঠাত্ করেই সেটি অনিয়মিত হয়ে গেল তা হলে কিন্তু বি’ষয়টি অবশ্যই চিন্তার।

এ ছাড়াও ঘন ঘন টয়লেট পাওয়া পিএমএস এবং মেনোপজে’র সময় র’ক্তপাত খাওয়া এগুলোও কিন্তু ডিম্বাশয় ক্যা’ন্সারের কারণ হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here