নেত্রকোনা জে’লার বারহাট্টা উপজে’লার সিংধা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ মাহবুব মোর্শেদ কাঞ্চনের বাসার গৃহকর্মী মারুফা(১৪) রহ’স্যজনক মৃ’ত্যু হয়েছে।
src=”http://worldinbangladesh.net/wp-content/uploads/2020/04/world-in.jpg” />

ময়না ত’দন্তের রিপোর্ট এখনো দেয়নি সদর হাসপাতাল।

তবে মারুফার মায়ের অভিযোগ মেয়েকে ধ’র্ষণে’র পর শ্বা’সরো’ধ করে হ’ত্যা করেছে চেয়ারম্যান।

মারুফার শরীরের বিভিন্ন গু’রুত্বপূ’র্ণ অ’ঙ্গে আ’ঘাত ও কা’ম’ড়ের চি’হ্ন রয়েছে, যৌ’না’ঙ্গে আ’ঘা’ত করে নি’র্ম’ম ভাবে হ’ত্যা করেছে।

নি’হ’ত গৃহকর্মী মারুফা আক্তারের মা আকলিমা আক্তার বলেন, আমার মেয়েকে ধ’র্ষ’ণ করে হ’ত্যা’ করা হয়েছে। এর আগেও চেয়ারম্যান আমার মেয়ের সঙ্গে খা’রা’প আচরণ করেছে।
src=”http://worldinbangladesh.net/wp-content/uploads/2020/04/world-in.jpg” />

বি’ষয়টি চেয়ারম্যানের স্ত্রীকে জানানো হয়েছে। মারুফার শরীরের আঘা’তের চি’হ্ন ছিল। আমি ধ’র্ষ’ণের আলা’মত দেখেছি। আমি গরিব মানুষ, নিজেও ঢাকায় মানুষের বাসায় কাজ করি। আমি এর বিচার চাই।

এদিকে পুলিশ ওই দিন মারুফার মর’দে’হ উ’দ্ধার করে ম’য়নাত’দন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালের ম’র্গে পাঠায়।

এ ঘটনায় মারুফার মা আকলিমা সোমবার (১১মে ) সন্ধ্যায় বা’দী হয়ে থানায় হ’ত্যা মা’মলা দা’য়ের করেন। পরে পুলিশ জি’জ্ঞাসাবাদের জন্য চেয়ারম্যানকে আ’ট’ক করে।
src=”http://worldinbangladesh.net/wp-content/uploads/2020/04/world-in.jpg” />

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মোহনগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল আহাদ খানের মুঠোফোনে বেশ কয়েকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

তবে মোহনগঞ্জ থানা পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ও মা’মলার তদ’ন্তকারী কর্মকর্তা হাদিউল ইসলাম জানান, গৃহকর্মী মারুফা খু’নে’র ঘটনায় চেয়ারম্যানের নাম উল্লেখসহ অ’জ্ঞাতদের আসা’মি করে থানায় মা’মলা করা হয়েছে। চেয়ারম্যানকে জি’জ্ঞাসাবাদ চলছে।

নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অ’পরাধ) মোহাম্মদ ফকরুজ্জামান জুয়েল বলেন, ওই গৃহকর্মীর র’হস্যজনক মৃ’ত্যু’র ঘটনায় চেয়ারম্যানকে জি’জ্ঞাসাবাদের জন্য আট’ক করা হয়েছে।
src=”http://worldinbangladesh.net/wp-content/uploads/2020/04/world-in.jpg” />

আমরা বি’ষয়টি নিয়ে ত’দন্ত করছি। ত’দন্তের স্বা’র্থে এর চেয়ে বেশি বলতে পারছি না।

Sharing is caring!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here